আজ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শেখ রাসেলের ৫৮ তম জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, বিশেষ  প্রতিনিধি। 
সোমবার ১৮ অক্টোবর সন্ধ্যায় আশুলিয়ার শ্রীপুর বাসস্ট্যান্ডে শেখ মনি যুব সংসদের আয়োজনে  জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এসময় সাভার উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের এক মাত্র সাংগঠনিক সম্পাদক ও শেখ মনি যুব সংসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক  খসরু মোহাম্মদ আমিরের সভাপতিত্বে  ও   শেখ মনি যুব সংসদের আশুলিয়া থানা যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লুৎফর  রহমানের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সাভার উপজেলা আওয়ামিলীগের সহ-সভাপতি, আশুলিয়া থানা আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটির সম্মানিত সদস্য, স্বনির্ভর ধামসোনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হাজী আব্দুর রাজ্জাক।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আশুলিয়া থানা আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটির  সদস্য বর্তমান স্বনির্ভর ধামসোনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হাজী সানাউল্লাহ, ঢাকা জেলা উত্তর কৃষক লীগের আহবায়ক ও আশুলিয়া থানা কৃষক লীগের সভাপতি মহসিন করিম,সাভার উপজেলা আওয়ামিলীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী দেওয়ান আবুল কাশেম মেম্বার, ঢাকা জেলা কৃষক লীগের যুগ্ম আহবায়ক আশুলিয়া থানা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী মোঃ হযরত আলী, আশুলিয়া থানা আওয়ামীলীগের সদস্য বর্তমান স্বনির্ভর ধামসোনা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ  হাবিবুর রহমান হবি সহ ধামসোনা ইউনিয়নের আওয়ামিলীগ যুবলীগ ও স্বেচ্ছা সেবক লীগের নেত্রী বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
  অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে খসরু মোহাম্মদ আমীর বলেন, রাজনৈতিক অনেক হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে কিন্তু বঙ্গবন্ধুর ফ্যামিলির উপর যে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে তা কখনই মেনে নেওয়া যায় না। ঘাতকরা শিশু রাসেল কে হত্যা করার আগেই একাধিকবার হত্যা করেছে। শিশু রাসেল বলেছিল আমি আমার মায়ের কাছে যাবো। তখন তারা বলেছে আয় তোকে তোর মায়ের কাছে নিয়ে যাই। তখন বেঈমানের দল শেখ রাসেলকে সকলের লাশের পাশে হাটিয়ে হাটিয়ে দেখিয়ে দেখিয়ে নিঃস্ব ভাবে বুলেটের আঘাতে রাসেল কে হত্যা করেছিল।
 প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাজী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমার যখন শেখ রাসেলের কথা মনে পড়ে তখন আমি আমার মনের ভিতরে একটা চাপা ব্যথা অনুভব করি। হাজী সানাউল্লাহ বলেন আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা যাকে মনোনয়ন দিবেন আমরা সকলেই এক সাথে তার নির্বাচন করে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করবো ইনশাআল্লাহ।
অনুষ্ঠান শেষে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে কেক কেটে ও মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেখ রাসেলের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
গাজীপুর ডক্টরস চেম্বার https://www.facebook.com/GazipurDoctorsChamber/