আজ ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নারায়নগঞ্জের রিমন মার্ডার মামলার আসামী ওর্য়াড আওয়ামীলীগ নেতা মোস্তফা গাজীপুর থেকে গ্রেপ্তার

নিজস্ব সংবাদদাতা ঃ

গত শনিবার ১২ জুন ২০২১ইং গাজীপুরের বোর্ডবাজার এলাকা থেকে মোস্তফা কামাল (৪০) কে গ্রেপ্তার করেছে নারায়নগঞ্জ জেলা ডিবি পুলিশ তথ্য বিবরনে মোস্তফা কামাল একজন মার্ডার মামলার আসামী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ২৭ মার্চ ২০২১ইং তরিখে বাদিনী জোসনা বেগম তার শিশু সন্তানকে নিয়ে স্বপরিবারে সিএনজি যোগে ডাক্তার দেখানোর উদ্দেশ্যে
নারায়নগঞ্জের ভুলতা গাউছিয়ার দিকে রওনা দেন। রুপগঞ্জ থানাধীন ব্রাক্ষণখালী নামকস্থানে সিএনজি পৌছানো মাত্র পূর্বের শত্রুতার জেরে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা বিবাদীগন আমাদের উপর ধারালো অস্ত্রদ্বারা অর্তকিত হামলা চালায়।

আশপাশে লোকজন না থাকায় বিবাদীগণ হত্যার উদ্দেশ্যে আঘাত করতে থাকে এতে আমিসহ সিএনজিতে থাকা সবাই রক্তাক্ত গুরতর জথম হই। আমার কলেজ পড়ুয়া ছেলে রকিবুল ইসলাম রিয়নকে এলোপাতাড়িভাবে কোপানোর কারনে গুরতর জখম হয়। অবস্থা বেগতিক দেখে স্থানীয় হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত ডা: ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন। তাৎক্ষনিক ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত ডা: মৃত্যু বলে ঘোষনা দেন।

রকিবুল ইসলাম রিয়ন স্থানীয় সলিমউদ্দিন চৌধুরী
বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের মানবিক শাকার ১ম বর্ষের ছাত্র ছিল। এদিকে গ্রেপ্তার হওয়া আসামী মোস্তফা কামাল ও তার স্ত্রী সাবিনা সহ রিয়ন হত্যা মামলার আসামীরা গা ঢাকা দিয়েছিল। রুপগঞ্জ থানার মামলা নং ৬৪ তারিখ ২৮/৩/২০২১ইং। এই মামলাটির তদন্ত ভার পায়
নারায়নগঞ্জ জেলা ডিবি পুলিশ।

নিবিড় তদন্তে নারায়নগঞ্জ ডিবি পুলিশ জানতে
পারে জিএমপি‘র গাছা থানাধীন বোর্ডবাজারস্থ ই আর ই লাইব্রেরীর মালিক ও গাজীপুর সিটিকর্পোরেশনের ৩৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোস্তফা
কামাল (৪০) রিয়ন হত্যা মামলার আসামী। বাদিনী জোসনা বেগম কান্না জড়িতকন্ঠে বলেন, ছেলেকে আর ফেরত পাব না, অসহনীয় জ্বালাযন্ত্রনা, চোখের সামনে
ছেলেকে হারানোর বেদনা, যার হারিয়েছে সেই বুঝে।

আমার ছেলেকে যারা পরিকল্পিতভাবে মেরে ফেলেছে, তাদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি হউক। ছেলে হত্যা মামলার আসামীদের কারনে আর কোন মায়ের বুক খালি হউক সেটা আমি চাইনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
%d bloggers like this: