আজ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

স্যার’ সম্বোধন না করায় সাংবাদিককে জরিমানা করার প্রতিবাদ জানিয়েছে বিএমএসএফ

ইমাম বিমান :

‘স্যার’ বলে সম্বোধন না করায় ক্ষিপ্ত হয়ে কিশোরগঞ্জে এক সাংবাদিককে ভ্রাম্যমান আদালতে আর্থিক ভাবে জরিমানা করার প্রতিবাদ জানিয়েছে দেশের সর্ববৃহৎ সাংবাদিক বান্ধব সংগঠন ” বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম ” বিএমএসএফ।

২৮ডিসেম্বর সোমবার সন্ধ্যায় যৌথ এক বিবৃতিতে সাংবাদিক বান্ধন সংগঠন ” বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম ” বিএমএসএফ সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলট ও সাধারন সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর জানান, দেশের চতুর্থ স্তম্ভে থেকেও গনমাধ্যম কর্মী তথা সাংবাদিক আজও অবহেলিত রয়েই গেছে। আর এ অবহেলার কারনেই দেশের সাংবাদিকরা আজ বিভিন্ন স্থানে সত্য প্রকাশ করায় রাজনৈতিক, সরকারি দপ্তর সহ বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, সামাজিক প্রতিষ্ঠান মামলা, হামলার শিকার হয়, কখনও নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন।

আর তারই ধারাবাহিকতায় গত ২৮ ডিসেম্বর কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসনের এক কর্মকর্তাকে ভাই বলে সম্মোধন করায় ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিদিনের সংবাদ-এর কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক আকিব হৃদয়কে তারা আটক করে। পরে পুলিশের গাড়িতে উঠিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নিয়ে সেখানে একটি রুমে আবদ্ধ করে গালাগালি ও খারাপ আচরণ করা হয়। কিশোরগঞ্জ সার্কিট হাউজের সামনে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওবায়দুর রহমান সাহেল, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর মাহমুদুল হাসান, মো. ইব্রাহিমের উপস্থিতিতে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা জুলহাস হোসেন সৌরভ সাংবাদিক আকিব হৃদয়ের সংবাদ সংগ্রহের জন্য ব্যবহারিত মটর সাইকেলের ইস্যূতে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। যা সংবাদিককে ভয় প্রদর্শনের একটি অন্তরায় বলা যায়। তাই ” বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম ” বিএমএসএফ সাংবাদিকের সাথে জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের কর্মকর্তার এহনো অশুভ আচরনের তীব্র নিন্দা জানায়।

প্রসংঙ্গত গতকাল ২৮ ডিসেম্বর সোমবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ সার্কিট হাউজের সামনে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় সাংবাদিক আকিব হৃদয় ঐ স্থান থেকে তার ব্যবহারিত মটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় মটরসাইকেল থামানোর জন্য সিগন্যাল দিলে আকিব মটরসাইকেলটি রেখে জেলা প্রশাসন কর্মকর্তাকে ভাই কেমন আছেন বললে তিনি ক্ষিপ্ত হয়েযান। ঐ কর্মকর্তাকে কেন ভাই বললেন এ জন্য সাংবাদিক আকিব হৃদয়ের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে তারা মটর সাইকেলের উস্যূতে তাকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করে বলেন, আপনি সাংবাদিক তাই আপনাকে বেশি করলাম। ভবিষ্যতে আমাদেরকে স্যার বলবেন! এই বলে আকিবের হাতে সড়ক আইন-২০১৮ এর একটি ভাউচার ধরিয়ে দেয়া হয়। শুধু জরিমানাই ঐ কর্মকর্তার ক্ষিপ্ততা না কমলে আকিবকে আটক করে জেলা প্রশাসন কার্যলয়ে নিয়ে সেখানের একটি কক্ষে ঢুকিয়ে গালমন্দ সহ খারাপ আচরন করেন।

এবিষয়ে প্রতিদিনের সংবাদ কার্যালয় থেকে জানতে চাইলে জেলা প্রশাসন কর্মকর্তা জুলহাস হোসেন সৌরভ বলেন, তার গাড়ির লাইসেন্স ছিল না, তাই সড়ক আইন-২০১৮ এর ৬৬ ধারায় ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
%d bloggers like this: