আজ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

গাজীপুরে কাশিমপুর কারাগার থেকে দন্ডপ্রাপ্ত আসামি নিখোঁজ:এডিশনাল আইজি প্রিজনকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন

বিশেষ প্রতিবেদক ঃ

গত ৬ আগষ্ট বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় লকআপের পর থেকে ওই কয়েদি নিখোঁজ রয়েছেন। ২০১১ সালে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আবু বকর কে কাশিমপুর কারাগারে আনা হয়।

গত ৭ আগষ্ট কর্ণেল আবরার রহমান এডিশনাল আইজি প্রিজনকে প্রধান করে তদন্ত কমিটির তিন কর্মদিবসে প্রতিবেদন দেয়ার কথা রয়েছে বলে জানান কারা কর্তৃপক্ষ। কাশিমপুর কারাগার-২ থেকে দন্ডপ্রাপ্ত আসামি নিখোঁজে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

২০১২ সালে ২৭ জুলাই তার সাজা সংশোধন করে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেন আদালত। এর আগে ২০১৫ সালের ১৩ মে সন্ধ্যায় তিনি আত্মগোপন করেছিলেন। পরেরদিন তাঁকে সেল এলাকায় সেফটি ট্যাংকের ভেতরে থেকে উদ্ধার করা হয়।

আসামি আবু বকর দুইদিন ট্যাংকির ভিতরে লুকিয়ে ছিলেন। আসামি আবু বকর সিদ্দিকের বাড়ি সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার আবাদ চন্ডীপুরে। এতো কড়া নিরাপত্তার মধ্যোদিয়ে কয়েদি কি করে পালিয়ে গেল, কারাগারের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে সকল মহলে।

এঘটনায় ইতিমধ্যে ছয়জনকে সাময়িক বরখাস্ত অপর ছয়জনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করা হয়েছে। এ বিষয়ে প্রধান তদন্ত কর্মকর্তা কারাগার থেকে বের হয়ে কর্ণেল আবরার রহমান এডিশনাল আইজি প্রিজন গণমাধ্যমকে জানান, এবিষয়ে তদন্ত কার্যক্রম চলমান রয়েছে তদন্তের স্বার্থে এখনি কিছু বলা যাচ্ছেনা তদন্ত শেষ জানানো হবে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
%d bloggers like this: