আজ ২৭শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কালিয়াকৈরে দেহ ব্যবসা প্রতিবাদ করায় ৭ জনের নামে মিথ্যা মামলা

গাজীপুর প্রতিনিধি ঃ

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের জালুয়াভিটি গ্রামের বিপুল শিকদারের অত্যাচারে অতীষ্ট গ্রামবাসী। নিজেই তৈরি করেছে ডান্স ক্লাব যার মধ্যে মেয়ে সদস্যদের দিয়ে বিভিন্ন অপকর্ম করানো হয়। এছাড়া জালুয়াভিটি এলাকায় মাদকে থেকে শুরু করে সকল ধরনের অপকর্মের সাথে তাকে জড়িত থাকতে দেখা যায়। তার এই অপকর্মের ছোবলে যুব সমাজ ধংশ হয়ে যাচ্ছে। এ কারনেই এধরনের অপকর্ম না করার প্রতিবাদ করলে বিপুল হাওলাদার গ্রামবাসীর নামে বিভিন্ন ভাবে মিথ্যা মামলা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তার বিরুদ্বে এলাকাবাসীর অনেক লিখিত ও অলিখিত অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে জালুয়াভিটি এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, জালুয়াভিটি গ্রামের বিপুল শিকদারের অত্যাচারে আজ অতীষ্ট গ্রামবাসী । এছাড়া সে অনেকদিন ধরে এলাকায় একটি ডান্স ক্লাব তৈরি করেছে, যেখানে নাচের নাম করে মেয়েদের দিয়ে দেহ ব্যবসা করায়। কিছু দিন যাত সেই সব মেয়েদের দিয়ে নৌকায় নিয়ে নাচ গানসহ বিভিন্ন অসামাজিক কাজ করায়। আর এই বিষয়ে আমরা প্রতিবাদ করলে সে কারও কথা না শুনে জালুয়াভিটি এলাকায় এধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছে।

গত ০৩/০৭/২০২০ তারিখ নৌকা দিয়ে তিন থেকে তিটা মেয়ে নিয়ে নাচানাচি করছে তা দেখে মহসিন, রিফাত, আমাত উল্লাহ, মোমিন, মনির, সুমন, রিদয়সহ প্রতিবাদ করলে তাদের কে গালিগালাজ করে এবং তাদের বিরুদ্ধে তাকে মারধুরের অভিযোগ তুলে এবং এ নিয়ে কালিয়াকৈর থানা একটি মিথ্যা মামলা করে।

যেখানে মামলায় উল্লেখ্য আছে যে মহসিন, রিফাত, আমাত উল্লাহ, মোমিন, মনির, সুমন, রিদয়সহ সবাই তাকে হকিস্টিক লাঠি দিয়ে আঘাত করে এবং পা ভেঙে দেয়। এছাড়া উপস্থিত মেয়েদের কাছে থাকা তিনটি মোবাইল ফোন ও ২৩ হাজার টাকা এবং মেয়ের গলায় থাকা স্বর্নের চেইন যার মূল্য ১৭ হাজার টাকা নিয়ে যায় ওরা। এবং বিষয়টা এলাকাবাসী আলোচনা করতে চাইলে বিপুল শিকদার তখন মহসিন সহ বাকি কাছে ১ লক্ষ টাকা দাবী করে এবং টাকা না দিলে মেয়েদের দিয়ে বিভিন্ন মিথ্যা মামলার দেওয়ার হুমকি দেয়।

ভুক্তভোগীর পরিবারের সদস্যরা বলেন ,আজ মিথ্যা মামলা দিয়ে মনির কে জেলে পাঠিয়েছে, আর বাকি ৬জন পুলিশের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে তাই আমরাও চাই সত্যিটা সবাই জানুক এবং সবাই মিথ্যা মামলা থেকে মুক্ত হতে পারে ও বিপুল শিকদারের মতো ছেলেরা যা তে শাস্তি পাই। চলমান ,,,,,,,,,,,,,,,,্‌্‌্‌

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
%d bloggers like this: